গাড়িতে মৃত্যু হয়েছে আইয়ুব বাচ্চুর: চিকিৎসক


হাসপাতালে নিয়ে আসার পথে নিজ গাড়িতে সংঙ্গীত শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্কয়ার হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মির্জা নাজিম উদ্দিন।

একই সাথে আইয়ুব বাচ্চুর হার্টের কার্যক্ষমতা মাত্র ৩০ শতাংশ ছিলো বলে গণমাধ্যমকে জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে হাসপাতাল প্রাঙ্গনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটে আইয়ুব বাচ্চুকে মৃত ঘোষণা করেন স্কয়ার হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা।

সঙ্গীত শিল্পী আইয়ুব বাচ্চু দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগে ভুগছিলেন- এমন তথ্য দিয়ে সংবাদ সম্মেলনে ডা. মির্জা নাজিম উদ্দিন বলেন, আইয়ুব বাচ্চুর হার্টের কার্যক্ষমতা ছিল ৩০ শতাংশ। নরমালি থাকে ৭০ শতাংশ। উনার ছিল ৩০ শতাংশ। যার জন্য উনি বার বার হাসপাতালে ভর্তি হতেন।

সবশেষ তিনি (আইয়ুব বাচ্চু) স্কয়ার হাসপাতালে এসেছিলেন ‘ফুসফুসে পানি নিয়ে’।

চিকিৎসক বলেন, আজ সকালে আবারো হৃদযন্ত্রে আক্রান্ত হন আইয়ুব বাচ্চু। গাড়ি চালকের বক্তব্য অনুযায়ী উনার মুখ দিয়ে ফেনা বের হচ্ছিলো। এর অর্থ হলো হার্টের কার্যক্রম বন্ধ হয়ে মুখ দিয়ে পানির মতো অর্থাৎ ফেনা বের হচ্ছিল। যেটাকে আমরা হার্টফেলও বলে থাকি।

About alokitonoakhali