বিবস্ত্র করে নির্যাতন: দেলোয়ার কারাগারে, সুমনের ৪ দিনের রিমান্ড

আলোকিত নোয়াখালী: Senior Editor | সংবাদ টি প্রকাশিত হয়েছে : ১৩. অক্টোবর. ২০২০ | মঙ্গলবার

বিবস্ত্র করে নির্যাতন: দেলোয়ার কারাগারে, সুমনের ৪ দিনের রিমান্ড

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন, ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি দেলোয়ার হোসেন দেলুকে পাঁচটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। নির্যাতন মামলার ছয় নম্বর আসামি সামছুদ্দিন সুমনের চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর ও মোয়াজ্জেম হোসেন সোহাগ মেম্বারের জামিন নামঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার সকালে নোয়াখালী চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মাসফিকুল হক এসব রায় দেন।

পিবিআই নোয়াখালী ইন্সেপেক্টর মামুনুর রশিদ পাটোয়ারী বলেন, সকালে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি দেলোয়ার, নির্যাতন, পর্নোগ্রাফি মামলার ৬নাম্বার আসামি সামছুদ্দিন সুমন ও গ্রেপ্তারকৃত মোয়াজ্জেম হোসেন সোহাগ মেম্বারকে চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ৩নং আমলি আদালতে হাজির করা হয়। আদালতের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মাসফিকুল হক ৫টি মামলায় শুনানি শেষে দেলোয়ারকে গ্রেপ্তার, নির্যাতন মামলায় সামছুদ্দিন সুমনের চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর ও সোহাগ মেম্বারের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এছাড়াও বিকালে নির্যাতন ও পর্নোগ্রাফি মামলার রিমান্ড শেষে আসামি আবুল কালাম আদালতে ১৬৪ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেওয়ার পর তাকেও কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর আলতাফ হোসেন জানান, গ্রেপ্তারকৃত সোহাগ মেম্বারের পক্ষে আদালতে কোন আইনজীবী না থাকায় তিনি নিজে নিজের জামিনের জন্য আবেদন করেন। এসময় তার জামিনের বিরোধিতা করেন তিনি এবং জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মোল্লা হাবিবুর রসুল মামুন।

প্রসঙ্গত, গত ২ সেপ্টেম্বর রাতে ওইনারীর আগের স্বামী তার সাথে দেখা করতে তার বাবার বাড়ি একলাশপুর ইউনিয়নের জয়কৃষ্ণপুর গ্রামে এসে তাদের ঘরে ঢুকেন। বিষয়টি দেখেন স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী ও দেলোয়ার বাহিনীর প্রধান দেলোয়ার। রাত ১০টার দিকে দেলোয়ার তার লোকজন নিয়ে ওই নারীর ঘরে প্রবেশ করে পরপুরুষের সঙ্গে অনৈতিক কাজ ও তাদের কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাকে মারধর শুরু করেন। এক পর্যায়ে পিটিয়ে নারীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণ করে। ৪ অক্টোবর দুপুরে ওই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে দেশ ব্যাপী তোলপাড় সৃষ্টি হয়। ঘটনায় এ পর্যন্ত ১১জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর মধ্যে ছয়জন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

এই বিভাগের আরো খবর Posts