ভোটার নেই, অলস সময় কাটাচ্ছেন প্রিজাইডিং অফিসাররা!

৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ৪র্থ ধাপের নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলা পরিষদ
নির্বাচনে ১টি পৌরসভা ও ১০টি ইউনিয়নে রোববার সকাল ৮টা থেকে ভোট
গ্রহণ শুরু হলেও ভোটকেন্দ্রে ভোটারের উপস্থিতি খুবই কম দেখা গেছে। ভোটারদের
উপস্থিতি কম থাকায় ভোটকেন্দ্রে সহকারী প্রিজাইডিং অফিসাররা অলস সময়
কাটাচ্ছেন।
উপজেলা নির্বাচন অফিসসূত্রে জানা যায়, উপজেলার ১টি পৌরসভা ও ১০টি
ইউনিয়নে ৮৬টি ভোটকেন্দ্র রয়েছে। তার মধ্যে ৩৩টি ভোটকেন্দ্র ঝুকিপূর্ণ। ৮৬ জন
প্রিজাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার, পোলিং এজেন্ট, র‌্যাব,
বিজিবি, পুলিশ ও আনসার বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করেছে। এ উপজেলায় মোট
পুরুষ-মহিলা ভোটার ২ লক্ষ ৩৬ হাজার ৬ শত ৫৭ জন। ভোটের কক্ষ ৫২৫টি।
উপজেলার বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রে সকাল ৯টা থেকে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়,
উপজেলার শিমুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে ভোটারের উপস্থিতি কম।
প্রিজাইডিং অফিসার শুভ্রত দেওয়ান বলেন, ভোটার না এলে আমরা কি করব? বিভিন্ন
কারণে ভোটাররা ভোটকেন্দ্রে আসছেনা। পৌর এলাকার আলিয়া মাদ্রাসার ভোটকেন্দ্রে
গিয়ে দেখা যায়, শামছুন্নাহার নামে স্বামী- মনির হোসেন, সাং- সোনাইমুড়ী,
উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মাইক প্রতীকে জ্বাল ভোট দিতে গিয়ে
আইনশৃংখলা বাহিনীর হাতে আটক হন। পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। অপর প্রতিদ্ব›দ্বী
চশমা প্রতীক আসাদুজ্জামান রিপন প্রতিবাদ করলে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও
মাইক প্রতীকের সমর্থক মমিনুল ইসলাম বাকের বেলা ১১টার দিকে ভোটকেন্দ্রে
প্রার্থীকে টেনে হেঁচড়ে লাঞ্চিত করে। রশিদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
ভোটকেন্দ্রে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী নিজাম উদ্দিন সুজন (মাইক প্রতীক)
সমর্থকরা সকাল ৯টায় চশমা প্রতীকের প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দিয়ে কেন্দ্র দখলে
নেয়। সেই কেন্দ্রে মাইকের এজেন্ট জেসমিন আক্তার নিজেই ব্যালেট পেপারে সীল মেরে
ভোটবক্সে ঢুকাচ্ছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। রশিদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
ভোটকেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার শামছুল আরেফিন বলেন, ভোটারদের উপস্থিতি
সকাল থেকেই কম। তবে চশমা প্রতীকের এজেন্টদের সকাল থেকেই তিনি দেখেন নি।
জ্বাল ভোট দেয়ার অভিযোগ পেয়ে মাইকের এজেন্ট জেসমিন আক্তারকে সতর্ক করেছে।
রাজিবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভোটকেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার
এবিএম নোমান জানান, এ কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি কম। সকাল ৮টার পর কিছু
ভোটার এলেও পরে ভোটার না আসায় অলস সময় পার করেছেন। ৩নং বুথে মাইক প্রতীকের
সমর্থকরা জোর পূর্বক ব্যালেট পেপারে সীল মারার চেষ্টা করলে তিনি নিয়ন্ত্রণে
আনেন। এ কেন্দ্রে মোট ভোটার ২৫৩৯ জন। ভোট দিয়েছেন ৩১৭ জন ভোটার। মকিল­া
নূরানী হাফেজিয়া এতিমখানা ভোটকেন্দ্রে প্রিজাইডিং অফিসার মাইনুর রহমান
জানান, এ কেন্দ্রে মোট ভোটার ৩০২০ জন। ২৯৯ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।
উত্তর শাহপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, ভোটার নেই।
ভোটার না আসায় প্রিজাইডিং অফিসার শাহ আলম চেয়ারে পা তুলে বসে অলস সময়
কাটাচ্ছেন।

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান চশমা প্রতীক প্রার্থী আসাদুজ্জামান
রিপন জানান, বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এ উপজেলার বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রে
সহিংসতা হওয়ায় ভোটাররা আতংকিত রয়েছে। ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি কম
ছিল। তার প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থী মাইক প্রতীকের সমর্থকরা কয়েকটি ভোটকেন্দ্রে তার
এজেন্টদের বের করে দিয়েছে। কর্মীদের মারধর করেছে। তাকেও শারীরিকভাবে লাঞ্চিত
করেছে।
উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান মাইক প্রতীক প্রার্থী নিজাম উদ্দিন
সুজন জানান, ভোটারের উপস্থিতি কম হলেও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট হয়েছে।

 

About alokitonoakhali