মেয়র মোহাম্মদ উল্যার বাস ভবনে গুলি, উত্তাল চাটখিল

সাইফুল ইসলাম রিয়াদঃ নোয়াখালীর চাটখীল পৌরসভার মেয়র ও চাটখীল উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মোহাম্মদ উল্যার বাস ভবনে কতিপয় সন্ত্রাসিরা হত্যার উদ্দেশ্য হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে চাটখিলের রাজপথ। সকাল থেকে দলীয় নেতাকর্মীরা চাটখীল বাজারে জড়ো হয়ে প্রতিবাদ জানাতে থাক এবং চাটখিল বাজার কমিটি সহ ব্যবসায়ীরা দোকানপাট বন্ধ করে দেয়। বিক্ষুর্ধ নেতা কর্মীরা রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে প্রতিবাদ করতে থাকে। বন্ধ হয়ে যায় রামগঞ্জ সোনাইমুড়ি রাস্তায় যানচলাচল।

এব্যপারে মেয়র মোহাম্মদ উল্লাহ পাটোয়ারী বলেন, ভোর রাত পৌনে ৩টার দিকে পৌরসভার ফতেহপুরে তার নিজ বাড়ি লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা। এ সময় তিনি ভবনের দ্বিতীয় তলায় নিজ কক্ষে ঘুম থেকে জেগে উঠে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করেন বলে জানান। রাজনৈতিক শত্রুতার কারণে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে প্রতিপক্ষ কেউ এই ঘটনা ঘটিয়েছে বলে ধারণা করছেন মেয়র। গুলি লেগে ভবনের নীচ তলার একটি কক্ষের জানালার কাচ ভেঙে যায় বলেও জানান তিনি।

চাটখিল থানার ওসি জহিরুল আনোয়ার জানান, মেয়রের বাড়িতে গুলি বর্ষণের খবর পাওয়ার পরপরই পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। সেখান থেকে রিভলবারের তিনটি গুলির খোসা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পরে চাটখিল বাজারে এক সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সভায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী আলহাজ্ব জাহাঈীর আলম, এস পি চাটখিল-সোনাইমুড়ী সার্কেল, মেয়র মোহাম্মদ উল্যা, চাটখীল উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা, ও চাটখীল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বক্তব্য রাখেন।
চাটখীল থানার ভাবপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আগামী ২ দিনের মধ্যে ঘটনার সাথে জড়িত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের আশ্বাস দেন। তিনি মেয়রের সমর্থনে নেতাকর্মীদের উপস্থিতি দেখে বলেন, আজ প্রমানীত হলো চাটখিলে মেয়র অনেক জনপ্রিয়।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উনার বক্তব্যে বলেন, মেয়র মোহাম্মদ উল্যা সরকারি দলের লোক। জনপ্রতিনিধি। উনাকে আক্রমন করা মানেই সরকারের উপর আক্রমন। আমরা সর্বান্তক চেষ্টা করে সন্ত্রাসীদেরকে আইনের আওতায় আনবো।
নেতা কর্মীদের উপস্থিতিতে আবেগ জড়িত হয়ে মেয়র মোহাম্মদ উল্যা সবাকে ধন্যবাদ জানান এবং শান্ত থাকার জন্য অনুরোধ করেন।

পরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারি আলহাজ্ব জাহাঈীর আলম কঠোর হুশিয়ারি দিয়ে সন্ত্রাসীদের চাটখীলের মাটিতেই বিচারের আশ্বাস দেন। জনগনের জানমালের নিরাপত্তায় যেনো কোন সমস্যা না হয় সেই দিকে নেতা কর্মীদের সজাগ থাকার জন্য বলেন। পাশাপাশি জনসাধারনের কথা বিবেচনা করে রাস্তার সমস্ত ব্যারিকেট সরিয়ে যানচলাচল স্বাভাবিক করার অনুরোধ করেন। উনার ঘোষনার সাথে সাথে নেতা কর্মীরা সকল ব্যারিকেট সরিয়ে ফেলে। ফলে যানচলাচল স্বাভাবিক হয়।

 

Facebook Comments

About editor

x

Check Also

চাটখিলে প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী মোঃ জাহাঙ্গীর আলম এর উদ্যোগে ইফতার সামগ্রী বিতরন

বিশেষ প্রতিনিধি : আসন্ন পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষ্যে নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলায় পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর আলম ...