সুদানে শিক্ষক হত্যায় ২৯ গোয়েন্দার মৃত্যুদণ্ড

প্রতিবেদন টি শেয়ার করুন

বন্দী অবস্থায় সরকারবিরোধী এক শিক্ষককে হত্যার দায়ে ২৯ গোয়েন্দা কর্মকর্তাকে মৃত্যুদণ্ডের রায় দিয়েছেন সুদানের একটি আদালত। সোমবার আদালতের রায়ে বলা হয়, আহমেদ আল-খেইরকে গোয়েন্দাদের একটি কার্যালয়ে অমানুষিক নির্যাতন চালানো হয়েছে।
ঐতিহাসিক এ রায়ে ২৯ জনকে মৃত্যুদণ্ড দেয়ার পাশাপাশি চার কর্মকর্তাকে তিন বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে সাতজনকে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, গত জানুয়ারি মাসে সুদানের পূর্বাঞ্চলীয় কাসালা প্রদেশ থেকে আহমেদকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা কর্মকর্তারা। এরপর তার ওপর চালানো হয় নির্মম নির্যাতন। গোয়েন্দাদের নির্যাতনে মৃত্যুবরণ করেন ওই শিক্ষক।

আল-খেইর ওমর আল-বশির সরকারবিরোধী ছিলেন।

রায় ঘোষণার পর শত শত মানুষ অমদুরমান আদালতের বাইরে জাতীয় পতাকা ও আহমেদের ছবি নিয়ে জমায়েত হয়ে আনন্দ–উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। তারা আদালতের রায়কে স্বাগত জানান। স্বাগত জানায় দীর্ঘদিনের শাসক ওমর আল বশিরের পতনে ভূমিকা রাখা সুদানের পেশাজীবীদের সংগঠনও।

জনবিক্ষোভের মুখে এপ্রিলে আল-বশিরের পদত্যাগের পর তার সময়ে বিক্ষোভকারীদের দমনে সরকারি কর্মকর্তাদের প্রথম আদালতের রায় এটি। বর্তমানে সুদানে সামরিক বাহিনী ও বিক্ষোভে নেতৃত্ব দেয়া জোটের প্রতিনিধিরা যৌথভাবে অন্তর্বর্তী সরকার চালাচ্ছে।